চট্টগ্রামে ৭০হাজার ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক

একাত্তর নিউজ ডেস্কঃ

চট্টগ্রাম নগর ও পটিয়ায় পৃথক ২ অভিযানে ৭০ হাজার ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব। তিনজনের মধ্যে একজন নিজেকে একটি মানবধিকার সংগঠনের সভাপতি হিসেবে পরিচয় দিয়েছে বলে জানান র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার মো. মাশকুর রহমান।

বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নগরীর কোতোয়ালী থানার জুবলি রোডের ‘হোটেল আল ফয়সাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড নামক আবাসিক’ হোটেলে অভিযান চালিয়ে ৯ হাজার ২শ ৭০ পিস ইয়াবাসহ মো. আনোয়ারুল হাসান রাসেল (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানার ৯ নম্বর বড়লিয়া ইউপির আমজুর হাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬০ হাজার ৮০০ পিস ইয়াবাসহ মো. নাছিবুর রহমান (৪২) ও মো. রাশেদ (২৭) নামে ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭। ২ অভিযানে মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস এবং শ্যামলী স্কুটারও জব্দ করা হয়।

এ এসপি মো.মাশকুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে নগরীর কোতোয়ালী থানার এনায়েত বাজারে হোটেল আল ফয়সাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড নামে একটি হোটেলে অভিযান চালানো হয়। র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে হোটেল থেকে বেরিয়ে পালানোর সময় মো.আনোয়ারুল হাসান রাসেল (৩৫) নামে একজনকে আটক করা হয়।

তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, হোটেলের পার্কিংয়ে রাখা একটি স্কুটির ভেতর থেকে ৯ হাজার ২৭০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত স্কুটি জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া রাজশাহীর বাসিন্দা রাসেলের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ২টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

চট্টগ্রাম পটিয়া থানার ৯ নম্বর বড়লিয়া ইউপির আমজুর হাট এলাকার অভিযানে প্রাইভেট কারে সোসাইটি ফর এস্টাবলিমমেন্ট অ্যান্ড ইমপ্লিমেনটেশন অব হিউম্যান রাইটস নামের একটি মানবাধিকার সংগঠনের লোগোযুক্ত স্টিকার লাগিয়ে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে আসার সময় সংগঠনটির ঢাকার সভাপতি নাছিবুর রহমান প্রকাশ নাছিব ও তার গাড়ি চালক রাশেদকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ৬০ হাজার ৮০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

তারা কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে ঢাকায় যাচ্ছিল। এর আগেও একই কায়দায় আরও দুইবার কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ইয়াবা নিয়ে গিয়েছিল বলে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছে। সোসাইটি ফর এস্টাবলিশমেন্ট অ্যান্ড ইম্পিমেনটেশন অব হিউম্যান রাইটস নামের মানবাধিকার সংগঠনের আড়ালে নাছিব ইয়াবা ব্যবসা করে আসছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলার পটিয়া থানায় হস্থান্তর করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা মো. মাশকুর রহমান।

Please follow and like us: